All for Joomla The Word of Web Design
অন্যান্য

মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর কওমীবন্দনা ও কিছু কথা

ছাকিবুল ইসলাম কাসেমী
শাইখুল হাদীস, জামেয়া কাসেমিয়া সোনারগাঁ,নারায়নগঞ্জ 
আরবী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রোগ্রামে শিক্ষামন্ত্রী মহোদয় বলেছেন, মাদরাসার ছাত্ররা ইঞ্জিনিয়ার হলে রডের বদলে বাঁশ দিবে না! বিষয়টি আমাদের কে নানানভাবে ভাবিয়েছে৷ কেউ কেউ বলছেন, এটা মন্ত্রী মহোদয়ের মাদরাসা ছাত্রদের সেন্টিমেন্ট কে ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করার প্রচেষ্টার অংশ! কেউ বলেছেন, এর দ্বারা স্বীকৃতির রংবদলের ভূমিকা স্থাপন করেছেন তিনি! কেউ বলেছেন, ছাত্রদের কে আলেম হওয়ার পথ বদল করে ইঞ্জিনিয়ারিংএ উৎসাহিত করার প্রয়াস চালাচ্ছেন এমন কথা বলে! কিন্তু আমার চিন্তা সেসব বিজ্ঞজনদের ভাবনার সঙ্গে একাত্ব হতে পারেনি কেন জানি না! কেননা, বক্তব্যের মাধ্যমে একটি সুসংহত আত্ববিশ্বাসী ঐতিহ্যবাহী দীনি কাফেলার চিন্তার পথকে পরিবর্তন করে দেবেন মাননীয় মন্ত্রী, কীভাবে তা সম্ভব! এমন কিছুর বাস্তবতাকে অস্তিত্বের নৈকট্যে আবিষ্কার করা গেলে এ হবে আমাদের চরম ব্যর্থতার দুঃখজনক গল্প! আমরা যুগ-যুগের শিক্ষা-দীক্ষা দিয়ে যে আদর্শের বীজ বপন করেছি, যে পরিকল্পিত প্রাসাদ নির্মাণের ভিত্তি গড়ে তুলেছি, তা কোনো অতিথী-কথায় ভেঙ্গে পড়বে! আবেগী ভাষায় হারিয়ে যাবে, একেমন কথা! তাহলে তো আমাদের পুরো শিক্ষাব্যবস্থাকে দীক্ষাপ্রক্রিয়াকে নতুন করে সংস্কারের প্রয়োজন দেখা দিবে! অথচ আমাদের সূদীর্ঘ শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এমন কোনো আত্বঘাতী গল্পের পথ পারি দেয় নি! স্বাতন্ত্র্যের মর্যাদা ও পরিচয় ভুলে যাবার কোনো দীর্ঘ কাহিনীর অবতারনা করে নি! বিচ্ছিন্ন কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ব্যতিক্রম কোনো ঘটনা সব সমাজেই থাকে অল্পস্বল্প! আরেকটু পেছন থেকে দেখলে, মদীনা, কূফা, মিসর হয়ে জ্ঞান-বিজ্ঞানের যে ভূবনজয়ী সাম্পান দারুল উলুম দেওবন্দে এসে নোঙ্গর করেছে, অতপর সুবিস্তৃত পৃথিবীর দিকদিগন্ত এই শিক্ষা সাংস্কৃতি ও সভ্যতার সূর্য বারবার মোহিত ও আলোকিত করেছে! এখনও করছে৷ অনাগত প্রজন্মকেও করে যাবে! মানবতার কল্যাণে এই সহজ ও নিটোল সত্যের স্বীকৃতি দেশ-বিদেশের বহু প্রতিভাবান গুণীজনরাই দিয়েছে! সেই দৃষ্টিতে মন্ত্রী মহোদয় খুব কিছু বলে ফেলেছেন, এমন কিছু নয়! একটি প্রতিষ্ঠিত সত্যের বিলম্বিত উচ্চারণকারী হয়েছেন মাত্র! আর একটি শেকড়-শুদ্ধ শিক্ষা পরিমন্ডলে বেড়ে উঠা কোনো শিক্ষার্থী হাওয়ায় ভেসে বেড়ানো কোনো কথায় প্রভাবিত হবে এমনটা ভাবা যায় না!
মাদরাসার ছাত্ররা ইঞ্জিনিয়ার হলে, দায়িত্বের ক্ষেত্রে সৎ ও নিষ্ঠার পরিচয় পাবার যে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন মাননীয় মন্ত্রী, এতে কওমী স্বীকৃতির রংবদলের কোনো অস্পষ্ট ইংগিত আছে বলেও আমি মনে করি না! কেননা, স্বীকৃতি আপন পথে নিরাপদে এগিয়ে যাচ্ছে! এখানে কারও কোনো রকম হস্তক্ষেপ আমাদের নেতৃবর্গ মেনে নেননি, নিবেনও না! মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেখানে নিষ্কলুষ ভালোবাসা ও সম্মান দেখিয়ে দূরদর্শীতার সঙ্গে শীর্ষ আলেমদের শর্তসমূহ গুরূত্বের সঙ্গে আমলে নিয়ে স্বীকৃতির ঘোষণা দিয়ে দিয়েছেন। এখানে অপ্রাসঙ্গিকভাবে অন্য কেউ কোনো রকম এদিক সেদিক কিছু করার দুঃসাহস দেখাবে, এটা কল্পনাও করা যায় না! আমাদের বিজ্ঞ রাজনীতিক ও পদস্থ আমলাগণ এমন স্পর্ধা দেখানোর মত এতো বোকা হয়ে যান নি! আধুনিক এই চ্যাল্যাঞ্জিং বিশ্বে আমাদের কওমী ঘরানার শিক্ষার্থীগণ এখন আর সীমিত শিক্ষা পরিবেশে সিমাবদ্ধ থাকছে না! নিজেদের ধর্মীয় ও আদর্শিক জীবনের স্বাতন্ত্র্য অটুট রেখে তারা এখন বিজ্ঞান অর্থনীতি সাংবাদিকতা ইঞ্জিনিয়ারিংসহ নানান বিষয়ে নামী দামী ভার্সিটিগুলোতে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখছে! নিকট অতীতের আল্লামা মানযুর নুমানী রহ, মুফতী শফী রহ, আল্লামা তকী ওসমানীসহ বর্তমান সময়ের আল্লামা মামুনুল হক, আল্লামা শামসুল হক সিদ্দীকী প্রমূখ তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ! পাশাপাশী প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়াগুলোতেও আমাদের কীর্তিমানদের সদর্প বিচরণ এখন সব মহলের দৃষ্টি কাড়ছে! মাওলানা শরীফ মোহাম্মদ, যাইনুল আবেদীন, লিয়াকত আলী, আলী হাসান তৈয়ব প্রমূখ এই গর্বিত কাফেলার আদর্শ উপমা! এসব বিষয় মাথায় রেখে, আমাদের হাইব্রিড ইঞ্জিনিয়ারদের বাঁশগল্পে মূগ্ধ(?) হয়ে,দেশের ভবিষ্যত স্থাপনাগুলোকে অন্তত ঝুঁকিমুক্ত রাখার অভিলাসে যদি মাননীয় মন্ত্রী আমাদের ভার্সিটিমুখী মেধাবীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন, তাদেরকে অন্যদিকের তুলনায় এই বিপর্যস্ত বিষয়টির প্রতি মনোযোগ দেয়ার অনুরোধ করেন, সর্বোপরী তাদের প্রতি নির্ভয় আস্থার ভালোবাসাপূর্ণ প্রকাশ করেন, তাহলে তো এতে সংশয় কিংবা সংকটের কিছু দেখছি না! বরং তিনি সশ্রদ্ধ ধন্যবাদ পাবার মত সত্যের উন্মোচন করেছেন! তবে মন্ত্রী মহোদয় যদি একই সাথে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদেরকেও মাদরাসা তথা ধর্মীয় শিক্ষার প্রতি উৎসাহিত করতেন! বলতেন, “সততা নিষ্ঠা ও আদর্শের সাথে দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে হলে মাদরাসা শিক্ষার বিকল্প নেই৷ তাই কিছু স্কুল-কলেজের ছাত্রদেরকেও আলেম হতে হবে! কুরআন হাদীসের বিশুদ্ধ জ্ঞান অর্জন করতে হবে”! তাহলে তার বক্তব্য ষোল কলায় পূর্ণ হত! সব মহলকে সমানভাবে প্রভাবিত ও উৎসাহিত করত! এ বক্তব্য ইতিহাসের আরও পূর্ণাঙ্গ অংশ হয়ে যেত ! অসচেতন কর্তাব্যক্তিদেরকে আরও সাবধানতার সাথে ভাবতে শেখাত!

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   হেফাজতের ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব   ❖   হাটহাজারী মাদরাসার বর্তমান অবস্থা শান্তিপূর্ণ   ❖   ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে আমার রাজনৈতিক পত্র   ❖   ভাসানচর নিয়ে জাতিসঙ্ঘের মূল্যায়ন চায় ইইউ   ❖   এমসি কলেজে ‘ছাত্রলীগের দখলে থাকা’ কক্ষ থেকে অস্ত্র উদ্ধার   ❖   তরুণীকে তুলে নিয়ে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ‘ছাত্রলীগের কক্ষের’ সামনে গণধর্ষণ   ❖   ক্ষমতা দখলের চক্রান্ত ॥ জেদ্দায় বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে গোপন বৈঠক   ❖   সরকার বিএনপির গোপন বৈঠকেরও খবর পায়: কাদের   ❖   উপ-নির্বাচনে সন্ত্রাসী আলামত দেখছেন রিজভী   ❖   বিশ্বের মাফিয়া চক্রের সঙ্গে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বিএনপি