All for Joomla The Word of Web Design
নির্বাচিত পোস্ট

বিশিষ্ট লেখক ‘আবদুল্লাহ আল ফারুক’-এর

দেশপ্রেম নিয়ে কিছু কথা

আবদুল্লাহ আল ফারুক
বিশিষ্ট লেখক, ইসলামি চিন্তাবিদ

আমি দেশপ্রেমকে দু’ ভাগে ভাগ করি।
একটি হলো, আমি পৃথিবীর যে ভুখণ্ডে জন্মগ্রহণ করেছি, যে মাটির আলো-বাতাসে বড় হয়েছি, সে মাটির সঙ্গে আমার শৈশব সম্পর্কের ফলে হৃদয়ের বন্ধন গড়ে উঠেছে, সে মাটির প্রতি আমার মানবিক টান আমি আমার মরমে অনুভব করি। আমি আমার জন্মভূমিকে ভালোবাসি।

একদিনের ঘটনা। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তখন মদিনা মুনাওয়ারায় বাস করতেন। মক্কা থেকে এক লোক মদিনায় এলেন। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কথায় কথায় তার কাছে মক্কার হাল-হাকিকত জানতে চাইলেন।
ওই লোকটি সম্ভবত কিছুটা কবিসুলভ মানসিকতার ছিলেন। তিনি মক্কা সম্পর্কে আলোচনা করার সময় পূর্ণিমা রাতে সেখানে কী ধরনের আলো-আঁধারী পরিবেশ সৃষ্টি হয়; তার বিবরণও এমনভাবে নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সামনে পেশ করেন যে, বর্ণনাকারী বলেন,

.اغْرَوْرَقَّتْ عَيْنَاهُ

‘নবীজির দু’চোখ অশ্রুসিক্ত হয়ে ওঠে।’ এক পর্যায়ে তিনি বলে ফেলেন, ‘এবার একটু থামো।’ [ঘটনাটি আমার অনূদিত গিলানি রহ.-এর লেখা “প্রেমের সফর” বইয়েও আছে।]

দেশপ্রেমের আরেকটি সংজ্ঞা আছে। কিছু লোক তাদের রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের জন্যে পৃথিবীবাসীকে এ তত্ত্ব গেলাচ্ছে যে, যেভাবে চীন শব্দটি ভারত শব্দ থেকে পৃথক; যেভাবে ভারত শব্দটি আরব শব্দ থেকে পৃথক; ঠিক সেইভাবে ওই নামগুলো যেই অঞ্চলগুলোকে নির্দিষ্ট করে সেই অঞ্চলগুলোর প্রতিটিও অন্যদের থেকে ঠিক এভাবেই সম্পূর্ণ পৃথক ও সম্পর্কহীন। কেমন যেন তাদেরকে এ কথাই বুঝানো হয়েছে যে, যেভাবে মঙ্গলগ্রহ বৃহস্পতিগ্রহ থেকে আলাদা; যেভাবে বৃহস্পতিগ্রহের সঙ্গে নেপচুনের কোনো সম্পর্ক নেই; তদ্রুপ পৃথিবীর এই অঞ্চলগুলোও একটি অন্যটি থেকে পৃথক ও স্বতন্ত্র।

এই জাতীয়তাবাদী মানসিকতার কারণে সে নিজের দেশকে নিয়েই ভাবে। নিজের দেশের স্বার্থরক্ষার জন্যে সে ভিনদেশের ওপর যে কোনো অবৈধ হস্তক্ষেপকে সমীচীন মনে করে। অন্য দেশের দুঃখ, শোক, আনন্দ, সংকট তাকে স্পর্শ করে না। সে নিজ দেশের জন্যে যতটাই উদ্বিগ্ন, বিশ্ববাসীর জন্যে ততটাই নিরুদ্বিগ্ন।
এটি হলো জাতিয়তাবাদপ্রসূত দেশপ্রেম।

দেশের প্রতি আমার ভালোবাসা প্রথম প্রকারের। আমি যেমন আমার জন্মভূমি বাংলাদেশকে ভালোবাসি, বাংলাদেশের জনগণকে ভালোবাসি, আমার মাতৃভাষাকে ভালোবাসি, তেমনই আমি ভালোবাসি বিশ্বের সকল মুসলমানকে। আমি রোহিঙ্গাদের জন্যে ততটুকুই উদ্বিগ্ন, যতটা উদ্বিগ্ন আমার দেশের মানুষের জন্যে। আমি এদেশের ইসলাম ও মুসলমানদের সংকটে যেমন আঁতকে উঠি তেমনই আঁতকে উঠি ফিলিস্তিনের নির্যাতিত, নিপীড়িত জনগোষ্ঠীর জন্যে।

আমি আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে মনে করি, উলামায়ে কেরামের দেশপ্রেম এবং স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার দীপ্ত শপথ এ অর্থেই। দয়া করে কেউ সেটাকে জাতীয়তাবাদের কাঠামোতে ফেলে, স্বেচ্ছাপ্রসূত দাঁড়িপাল্লায় মাপতে যাবেন না।

ইকবালের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়ে আমরাই গাই—
‘মুসলিম হ্যাঁ হাম, ওয়াতান হায় সারা জাহাঁ হামারা…’

 

মাই নিউজ/মাহদী

১,৩৫৮ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   লালমনিরহাটের গণপিটুনি ও পুড়িয়ে হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের দ্রুত শাস্তির আওতায় আনতে হবে: ইশা ছাত্র আন্দোলন, ঢাবি শাখা   ❖   কওমী শিক্ষার্থীদের জাতির উন্নয়নের অগ্রদূত হিসেবে শপথ গ্রহণ করতে হবে: মুফতি শেখ মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম   ❖   ‘হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর শিক্ষা সমগ্র মানব জাতির জন্য অনুসরণীয়’- রাষ্ট্রপতি   ❖   ফরাসিদের সাজা দেয়ার অধিকার মুসলমানদের আছে: মাহাথির   ❖   ফ্রান্স ইস্যুতে নিরপেক্ষ থাকবে বাংলাদেশ   ❖   ইসলাম অবমাননাকর কার্টুন প্রকাশে নিন্দা রাশিয়ার   ❖   অফিসে ধর্মীয় পোশাক, নোটিশ প্রত্যাহার করে দুঃখ প্রকাশ   ❖   মাসে ৭০ হাজার টাকা ভাড়ায় অফিস নিল “গন অধিকার পরিষদ”   ❖   সিনামা-নাটকে বিয়ের দৃশ্যে ‘কবুল’ বলা যাবে না!   ❖   নারীদের হিজাব, পুরুষের টাকনুর ওপর পোশাক পরে অফিসে আসার নির্দেশ