All for Joomla The Word of Web Design
পাঠকের কলাম

মাদানী নেসাব ইহুদি এজেন্ডা! কিছু কথা!

ইমরান হোসাইন নাঈম

সেদিন ক্লাসে কথা প্রসঙ্গে “মাদানি নেসাবের” কথা উঠল৷ ইধার-উধার বহু কথা চলল৷ এই নেসাবের ছাত্ররা ভর্তি পরীক্ষায় কতোটা সমস্যার সম্মুখীন হতো, তা নিয়েও কথা হলো৷ কথার এক পর্যায়ে আমাদের শিক্ষক একজন শ্রদ্ধেয় আলেমের কথা বললেন৷ যিনি মাদানি নেসাবকে “ইয়াহুদিদের দালাল” বলে মনে করতেন৷ তাই তার মাদ্রাসায় এমন দালালদের(!) ভর্তি নিতেন না৷

আমি যেহেতু এই নেসাবের একজন ছাত্র, ফলে এমনতর কথা অনেক শুনেছি৷ সবই হজম করে গেছি৷ কারণ যে যা-ই বলুক, এই নেসাবে পড়ে আমি উপকৃত হয়েছি৷ আমি কাদীম নেসাবেও অধ্যয়ন করেছি৷ সুতরাং কম্পেয়ার করার সুযোগ পেয়েছি৷ কাদীম নেসাবও আমার চলার পথকে সুগম করেছে৷

আমাদের মধ্যে হুট করেই কাউকে দালাল-কাফের বলার প্রবণতা খুব বেশি৷ পেছনে ফিরে দেখলে দেখবো— যেই নজরুলকে নিয়ে আজ আমরা এতো আপ্লুত, তাকেও কাফের বানিয়ে ছেড়েছিলাম আমরা৷ এখন নজরুলকে নিয়ে কথা বললেই, বাম-রামরা এই ইতিহাস টানে৷ এবং আমাদের বিব্রত করে৷ এই সুযোগ আমরাই তাদের করে দিয়েছি৷ ঠিক তেমনই মাদানী নেসাবকেও “আকাবিরের ওপর আকাবিরগিরী” “ইয়াহুদিদের দালাল” “নব ফেৎনা”সহ নানান খেতাবে(!) ভূষিত করা হয়েছে৷ এবং যথারীতি সেগুলো আমরা হজমও করে এসেছি৷ এখনও করছি৷

যখন তৃতীয় বর্ষে পড়ি, তখন হাটাজারি-ফারেগ এক শিক্ষক আমাদের পড়াতেন৷ মাদানি নেসাব, নদওয়াতুল ওলামা, নদবী রহ, কাউকেই তিনি দেখতে পারতেন না৷ কিন্তু তিনি এমন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত যা এই “তিনের” চেতনা লালন করে৷ ফলে তিনি তেমন কিছুই বলতেন না৷ তবে মাঝেমধ্যেই হাঁটে হাড়ি ভাঙতেন৷ একদিন বলেছিলেন, তোরা (মাদানী নেসাবের ছাত্ররা) কখনও বড় আলেম হতে পারবি৷ বড় আলেম হবে ঐ নেসাবের ছাত্ররাই!

তার কথা শুনে খুবই খারাপ লেগেছিলো৷ একজন শিক্ষক তার ছাত্রদের কীভাবে এমন কথা বলতে পারেন! আমি তার কথাটাকে খারাপ অর্থে না নিয়ে বরং, একটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখেছি৷ বড় আলেম হবার সংকল্প গ্রহণ করেছি তার কথা থেকে৷

অনেক কাদিম নেসাবের মাদরাসায় আমাদের ভর্তির সুযোগ ছিলো না৷ কিন্তু সেখানেও আমি পড়েছি৷ তারা পরবর্তীতে মাদানী নেসাবের ছাত্র ভর্তি নিতেন৷ কারণ, এরা পরীক্ষায় ভালো ফল আনতে পারত৷ মাদরাসার সুনামও বৃদ্ধি পেতো৷ যা আমি নিজেই প্রত্যক্ষ করেছি৷ সুতরাং কোন নেসাবে পড়লাম, তা বড় কথা নয়৷ বরং যোগ্যতাই আসল মাপকাঠি৷

অনেকেই নানান কথা বলবে৷ তাদের কথায় বিচলিত না হয়ে বরং, একনিষ্ঠতার সঙ্গে কাজ করে, স্বীয় যোগ্যতায় তাদেরকে উচিত জবাব দেয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ৷ আবু তাহের মেসবাহ দা: বা: সেই কাজটাই করেছেন নিরলস সাধনার মাধ্যমে৷ আল্লাহ তাকে দীর্ঘায়ু দান করুন৷ এবং যোগ্য উত্তরসূরী প্রদান করুন— আমিন৷

পুনশ্চ: আকড়োশ থেকে নয়, বেদনা থেকেই লিখেছি!

৭৭৯ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   কাল থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে আরব আমিরাতের মসজিদ   ❖   এডিআইও আবুধাবিতে স্টার্টআপের তহবিলের প্রবেশাধিকার বাড়ানোর জন্য শোরুক পার্টনার্স বেদায়া তহবিলে বিনিয়োগ করেছে   ❖   বাইতুল মোকাররমের খতিব হতে পারেন মাওলানা হাসান জামিল সাহেব!   ❖   ভারতীয় একজন কিডনী ব্যর্থতায় আক্রান্ত শিক্ষার্থীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, তুমি নিরাপদ হাতে রয়েছ   ❖   উচ্চ আদালতের স্থিতিবস্থা জারির পরও ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে রাজধানীর একটি মসজিদ   ❖   করোনাকালে ক্বওমী মাদরাসাগুলোর ১২ চ্যালেঞ্জ   ❖   চাকরিচ্যুৎ সেই ইমামকে স্বপদে বহাল করতে লিগ্যাল নোটিস   ❖   আজারবাইজানকে ১১ টন চিকিত্সা সহায়তা পাঠিয়েছে আমিরাত   ❖   রাতে নৌকার ছাদে জানাজা পড়ে লাশ ফেলা হতো সাগরে : খোদেজা বেগমের দুঃসাহসিক সমুদ্রযাত্রা   ❖   স্বেচ্ছাচার, স্বজনপ্রীতি ও স্বৈরাচার