All for Joomla The Word of Web Design
ইসলামী জীবন

বসন্ত আল্লাহ্‌র অপরূপ নেয়ামত

মোস্তফা কামাল গাজী

প্রকৃতিতে এখন বসন্তকাল। ‘ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক, আজ বসন্ত।’ ইট-পাথরের শহুরে জীবনের পরাবাস্তব দাবি শুধু এটাই। তবে গ্রাম্য জীবনে বাস্তবিক পক্ষেই বসন্ত নিয়ে আসে অনাবিল আনন্দ আর নির্মল সুখের বার্তা। প্রকৃতিতে ছড়িয়ে দেয় সৌন্দর্যের সব শাখা-প্রশাখা। শোভা-সৌন্দর্যের রেশ ধরে শীতের চাদর সরিয়ে ঘন গৌরবে নবযৌবনে আসে বসন্ত। থোকায় থোকায় কৃষ্ণচূড়া আর রাধাচূড়া জানান দেয়, বসন্ত এসে জুড়ে গেছে প্রকৃতির প্রতিটি কোণে কোণে; নীরবে, নিভৃতে। মেঠোপথ থেকে নিয়ে রাজপথÑ সর্বত্র যেন ফাগুনের আগুন জ্বলজ্বল করে জ্বলতে থাকে। শীতের পাতাঝরা গাছ আর বিষণœ প্রকৃতিতে শুরু হয় নবপ্রাণের সঞ্চার। সর্বত্র খুশির একটা আমেজ ফুটে ওঠে। শুধু মানুষ নয়, প্রতিটি প্রাণিকুলের মনে বসন্ত এসে দোলা দেয়। নতুন নতুন প্রাণের বিকাশ ও প্রকাশ জানান দেয়, বসন্ত সর্বজনীন, সব প্রাণের। ক্ষণে ক্ষণে কোকিলের কুহু কুহু তান আনন্দের বাঁশি বাজিয়ে যায় মনমহুয়ায়। পলাশ, শিমুলের শাখে শাখে ফাগুনের আগুন লেগে যেন দাউ দাউ করে। চন্দ্রমল্লিকা, মহুয়া, বকুল, সুরভি রঙ্গন, পুলক জুঁই, গন্ধরাজ, শ্বেত শিমুল, কুর্চি ফুলের গাছেও লাগে বসন্তের ছোঁয়া। প্রকৃতির নবজাগরণ পত্রপল্লবে জানান দিয়ে যায় হাওয়া বদলের কথা। শীতশীতে বেলা-অবেলায় ভাবুক মন হারায় শুধু নন্দন মুগ্ধতায়। বসন্তের অপরূপ সৌন্দর্যের কথা ফুটে উঠেছে কবিগুরুর কবিতায়Ñ ‘আহা আজি এ বসন্তে/কত ফুল ফোটে/কত বাঁশি বাজে/কত পাখি গায়…।’

বসন্তে মোহনীয় আভা ছড়িয়ে প্রতি সকালে সূর্য ওঠে। কাঁচা সোনারোদ ছড়িয়ে পড়ে মাঠ-ঘাট, বনবাদাড় সবখানে। মৃদু হাওয়ায় কাঁপে গাছের শাখা-প্রশাখা। টুপটাপ ঝরে পড়ে শিমুল ফুল। মুহূর্তে রক্তিম হয়ে ওঠে শিমুলতলা। মাতাল হাওয়ায় উদাসী বনে যায় মন। কবির ভাষায়Ñ ‘বসন্ত ছুঁয়েছে আমাকে/ঘুমন্ত মন তাই জেগেছে, পয়লা ফাল্গুন আনন্দ দিনে।’
চারদিকে আহ কী শোভা-সৌন্দর্য! অপরূপ সুন্দরের বাঁধন। স্নিগ্ধ ও নিখুঁত সৃষ্টি! মনে পড়ে যায় পবিত্র কোরআনের বাণীÑ ‘পৃথিবীর ওপর যা কিছু আছে, আমি সেগুলোকে তার শোভা করেছি। মানুষকে এ পরীক্ষা করার জন্য যে, তাদের মাঝে কর্মে কে শ্রেষ্ঠ।’ (সূরা কাহাফ : ৭)।
মহান প্রভুর গড়া এত সুন্দর প্রকৃতি অবলোকন করেও অনেকে স্রষ্টাকে চিনতে পারে না। ভুলে যায় তার নিখুঁত কারিগরকে। তাই আল্লাহ তায়ালা তাদের সতর্ক করে বলেন, ‘তারা কি নভোম-লের প্রতি দেখে না, কীভাবে তিনি তা বানিয়েছেন, সুশোভিত করেছেন? আর নেই তাতে কোনো ফাটল!’ (সূরা কাফ : ৬)।
বনবাদাড়ে, কাননে-কাননে পারিজাতের রঙের কোলাহল আর বর্ণাঢ্য সমারোহ আশোক-কিংশুকে বিমোহিত করে। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ভাষায়Ñ ‘এল এ বনান্তে পাগল বসন্ত/বনে বনে মনে মনে রঙ সে ছড়ায়রে/চঞ্চল তরুণ দুরন্ত।’
কবি নির্মলেন্দু গুণ লিখেছেন, ‘হয়তো ফুটেনি ফুল রবীন্দ্রসংগীতে যত আছে/হয়তো গাহেনি পাখি অন্তর উদাস করা সুরে/বনের কুসুমগুলি ঘিরে। আকাশে মেলিয়া আঁখি/তবুও ফুটেছে জবা, দুরন্ত শিমুল গাছে গাছে,/তার তলে ভালোবেসে বসে আছে বসন্ত পথিক।’
বসন্তের মাহেন্দ্রযোগে প্রাণের উচ্ছ্বাসের সঙ্গে দুর্যোগও হানা দিতে পারে। তারপরও বসন্ত ঋতুরাজ; বসন্ত তারপরও মনের কাগজে রঙিন তুলির পেলব স্পর্শে সবচেয়ে সুন্দর ছবিটাই আঁকে।
প্রাণের বসন্তে প্রজাপতি হয়ে মন চায় ফুলে ফুলে উড়ে বেড়াতে, মৌমাছি হয়ে মধু আহরণ করতে, পাখি হয়ে মধুর সুরে গান গাইতে। কখনও মন চায় প্রকৃতির অমল সৌন্দর্যে মিশে যেতে। বসন্ত নানা রং আর ফুলের বাহার নিয়ে উপস্থিত হয় বলে তাকে ছাড়তে মন চায় না কখনও। কিন্তু বাংলার ভূখ-ে বসন্ত যৌবনের চেয়েও ক্ষণস্থায়ী। এখানে বসন্ত আসতে না আসতেই ফুরিয়ে যায়। ফাল্গুন শেষে চৈত্র এলেই নিদারুণ তাপপ্রবাহে চৌচির হয়ে ওঠে প্রকৃতি। তারপরও এত অল্প সময়ে বসন্ত মানুষের মনের দুয়ারে ভালোলাগার যে পরশ বুলিয়ে যায়, তার রেশ ধরে মানুষ বাঁচতে শেখে, সামনে এগিয়ে চলার প্রেরণা পায়। প্রকৃতিতে এত বর্ণাঢ্য আর রাজকীয়ভাবে অন্য কোনো ঋতুর অভিষেক ঘটে না। বসন্তে আগুনঝরা কৃষ্ণচূড়ার ঔজ্জ্বল্যের কারণে কোনো কোনো দেশে বসন্ত দিয়ে শুরু হয় বছর। আমাদের দেশে বছর শুরু না হলেও সানন্দে ও নানা আয়োজনে বসন্তকে বরণ করে নেয় সবাই। বর্ণিল সাজে সজ্জিত বসন্তকে জায়গা দেয় মনের কোঠায়। প্রাণে প্রাণে বয়ে যাওয়া ফল্গুধারায় উচ্ছ্বসিত মন ও মননকে আরও প্রাণবন্ত ও বর্ণিল করে নেয়। মহান প্রভুর নিখুঁত এ সৃষ্টি দেখে দেখে প্রতিটি বান্দার উচিত তার যথাযথ শুকরিয়া আদায় করা। কেননা আল্লাহ তায়ালা বলেছেন, ‘আমার নেয়ামত পেয়ে যদি শুকরিয়া আদায় করো, তাহলে আমি নেয়ামত আরও বাড়িয়ে দেব। আর যদি অকৃতজ্ঞ হও, তাহলে মনে রেখো, আমার শাস্তি খুবই কঠিন।’ (সূরা ইবরাহিম : ৭)। সূত্র: আলোকিত বাংলাদেশ।

৯ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   বাসচাপায় প্রাণ হারালেন মামা-ভাগনে   ❖   ‘দৈনিক বিশ্ব ইজতেমা’— দেশজুড়ে ইজতেমার ধ্বনি   ❖   ২০২১ সালে বিশ্ব ইজতেমার দুই পর্বের তারিখ নির্ধারণ   ❖   আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা ২০২০   ❖   বিমান বিধ্বস্ত নিয়ে মিথ্যাচার: খামেনির পদত্যাগ চেয়ে বিক্ষোভ   ❖   প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে মুনাজাতে অংশ নেন   ❖   মোদি-অমিত বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুকে সমর্থন করলে মামলা তুলে নিবে:‌ জাকির নায়েক   ❖   প্রথমবারের মত ইরান সফরে কাতারের আমির   ❖   যুগে যুগে তাবলিগ   ❖   ইজতেমা—ইমান জাগার সম্মেলন