All for Joomla The Word of Web Design
বাছাই খবর

দেশবিরোধী শক্তি যেন ক্ষমতায় আসতে না পারে, সজাগ থাকুন: প্রধানমন্ত্রী

দেশবিরোধী শক্তি কোনদিন যেন এদেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে না পারে সেজন্য সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি ‘এই দেশ মুক্তিযোদ্ধাদের, স্বাধীনতা বিরোধীদের নয়’, উল্লেখ করে আজ বিকেলে রাজধানীর ফার্মগেটস্থ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনের মিলনায়তনে ৪৮তম স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘লাখো শহীদের বিনিময়ে অর্জিত এই স্বাধীনতা যেন কোনো দিন ব্যর্থ হতে না পারে এজন্য দেশবাসীসহ সকলকে সজাগ থাকতে হবে। বাংলাদেশ স্বাধীনতাবিরোধী, জঙ্গি এবং যুদ্ধাপরাধীদের দেশ নয়, এই দেশ মুক্তিযোদ্ধাদের, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসীদের, আমরা সেভাবেই দেশটাকে গড়ে তুলতে চাই।’

তিনি বলেন, যারা স্বাধীনতাকে ব্যর্থ করতে চায়, তারা যেন কোনো দিন ক্ষমতায় না আসতে পারে, আগামীতে এ দেশ হবে শুধু মুক্তিযোদ্ধাদের। রাজাকার, আলবদর, আল শামস আর খুনীরা যেন আর কখনো ক্ষমতায় না আসতে পারে, সেদিকে সবাইকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নিজেদের জন্য সম্পদ করা নয়, জনগণ যাতে সম্পদশালী হয়, উন্নত হয়, বাংলাদেশে একটা মানুষও যাতে গৃহহারা না থাকে, কেউ যেন না খেয়ে কষ্ট না পায় এবং একটা মানুষও বিনা চিকিৎসায় মারা যাবে না- আমরা সেটাই করতে চাই। তাই তাঁর সরকারের লক্ষ্য তৃণমূল পর্যায় থেকে উন্নয়ন করা, আমরা গ্রাম পর্যায় থেকে উন্নয়নের কাজটা শুরু করেছি।
কোন ঘর অন্ধকারে থাকবে না দেশের প্রতি ঘরকে তাঁর সরকার আলোকিত করবে উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, সেই লক্ষ্য এবং নীতি নিয়েই তিনি দেশ পরিচালনা করছেন বলেই দেশে আজ এই উন্নতিটা হচ্ছে, আর ’৭৫ পরবর্তী সরকারগুলো দেশের কোন উন্নতি করতে বা দেশের মানুষকে কিছু দিতে পারে নাই, তারা নিজেরা মুষ্টিমেয় কিছু লোকই সম্পদশালী হয়েছে আর বাকীর খাতায় শূন্য বলে তিনি উল্লেখ করেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এবং বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এবং সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য এসএম কামাল হোসেন এবং ঢাকা উত্তর মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি একেএ রহমতউল্লাহ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

এছাড়াও, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশীদ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক সাদেকা হালিম বক্তৃতা করেন। দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ ও উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম সভাটি পরিচালনা করেন এবং দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দ মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

দেশে জিয়াউর রহমানের আমল থেকেই খেলাপি ঋণের কালচার চলে আসছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, জিয়ার আমল থেকেই এই দুর্নীতির শুরু যা ধারবাহিকভাবে জিয়া, এরশাদ, খালেদা জিয়া যখনই যে সরকারে এসেছে, তাই করেছে।  দুর্নীতি করা আর নিজেদের সম্পদ গড়া, নিজেদের বিলাস-ব্যসন, ভোগ- বিলাস- এই নিয়েই তারা ব্যস্ত ছিল। দেশের মানুষের দিকে তারা ফিরে তাকায়নি।

৮৭ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   লেখক ফোরামের এবারের ভ্রমণ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ‘নুহাশ পল্লী’তে   ❖   বাসচাপায় প্রাণ হারালেন মামা-ভাগনে   ❖   ‘দৈনিক বিশ্ব ইজতেমা’— দেশজুড়ে ইজতেমার ধ্বনি   ❖   ২০২১ সালে বিশ্ব ইজতেমার দুই পর্বের তারিখ নির্ধারণ   ❖   আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা ২০২০   ❖   বিমান বিধ্বস্ত নিয়ে মিথ্যাচার: খামেনির পদত্যাগ চেয়ে বিক্ষোভ   ❖   প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে মুনাজাতে অংশ নেন   ❖   মোদি-অমিত বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুকে সমর্থন করলে মামলা তুলে নিবে:‌ জাকির নায়েক   ❖   প্রথমবারের মত ইরান সফরে কাতারের আমির   ❖   যুগে যুগে তাবলিগ