All for Joomla The Word of Web Design
বিশেষ কলাম

কোটা প্রথা, একটি রাষ্ট্র ধ্বংসের পূর্ব প্রস্তুতি

ফুয়াদ মাকসুদ
নিয়মিত লেখক, মাই নিউজ।

একটি দেশ কিভাবে দ্রুত স্বাধীন করা যায় তা যদি বিশ্ববাসী শিখতে চায় তবে তা বাঙালী জাতি থেকে সে শিখতে পারে, ঠিক তেমনি ভাবে একটি সুসংগঠিত, শান্তিপ্রিয়, মেধাবী জাতিকেও কিভাবে ধ্বংস করতে হয়, তা যদি কেউ জানতে চায় সেও তা বাঙালী জাতি থেকে জানতে ও শিখতে পারে!

৭১ রে আমাদের দেশের জ্ঞানী, গুনী, বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে পাকিস্তানিরা মূলত চেয়েছিল, আমাদের এই দেশকেই  হত্যা করতে ৷ তারা দেখেছিল, এরা হল, এজাতির কর্ণধার ৷ এদেরকে যদি শেষ করে ফেলা যায় তাহলে এ জাতি আর মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না, আমাদের বিরুদ্ধে নেতৃত্ব দেয়ার মত আর কেউ থাকবে না ৷ রাজনৈতিক, কূটনৈতিক এবং অর্থনৈতিক জ্ঞান বলতে এদের আর কিছুই থাকবে না ৷ তখন আমরা যেভাবে খুশি সে ভাবেই এদেরকে শাসন ও শোষন করতে পারবো ৷
বাস্তবে হয়েছিলও তাই ! যদিও তা তৎক্ষণাত দেখা যায়নি ৷

কিন্তু দেশ স্বাধীনের পর যখন একটি দেশ সুন্দরভাবে গঠনের জন্য কিছু জ্ঞানী ও অভিজ্ঞ মাথার প্রয়োজন পড়ে, ঠিক তখনি আমরা ধাক্কাটা খেলাম! হায়! কে আমাদের এগিয়ে নিবে? কারা আমাদের এগিয়ে নিবে? আমরা বিশাল একটা হোঁচট খাই ৷ তাদের সে শূন্যতা আমরা কতটা অনূভব করি বলে আজো আমরা শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করি!
‌তাদের সে শূন্যতার কারণেই আমাদের দেশ সম্বৃদ্ধশালী হতে অনেক সময় লেগে যায়! যদিও উন্নতি ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে যে শুধুমাত্র এ বাধাটিই ছিল এমনটি নয়, বরং আমাদেরও নীতি নৈতিকতারও চরম ঘাটতি ছিল ৷ কিন্তু এক্ষেত্রেও এমনটি ঘটার কারণ ছিল, জাতির মেধা শূন্যতা, বিচক্ষণ পথ প্রদর্শক শূন্যতা ৷ যার কারণে স্বাধীনতার চল্লিশ বছরেও আমরা স্বাধীনতার সে সুফল ঘরে তুলতে পারিনি 

অথচ ১৯৭৬ সালে স্বাধীনতা লাভ করে ভিয়েতনাম বাংলাদেশ থেকে অনেক অনেক এগিয়ে গিয়েছে ৷ যদিও বলা হয় ভিয়েতনাম ১৯৪৫ সনে স্বাধীন হয়েছে, মূলত সামগ্রিকভাবে সমাধান হয়েছে ১৯৭৬ রে এসে ৷ যাক সে কথা ৷ বিপরীত দিক থেকে বাংলাদেশ ! স্বাধীনতার চল্লিশ বছর পর যখন তা আস্তে আস্তে হাটতে শিখল! সে বুঝতে শিখল! রাজনীতি,অর্থনীতি ও কূটনীতিক ক্ষেত্রে সে যখন নিজেকে সক্ষমতার অবস্থানে নিজেক এগিয়ে নিতে লাগল! সে বুঝতে পারল, কিভাবে ঘুরে দাঁড়াতে হয় ! তখনি আরেক দল হায়েনা আবারো উঠে পড়ে লাগল ৷ এরা কোটার নামে রাষ্ট্রের সূর্য সন্তানদেরকে সুকৌশলে ধ্বংস করে দিতে চাচ্ছে ৷ তবে নতুন কোন কারণে নয়! বরং পাকিস্তানিদের মত একই কারণে! ওরা ওদের অনৈতিক, অমানবিক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে যারা কথা বলেছিল তাদেরকে যেমন হত্যা করেছিল ৷ আজকের শাসকগোষ্ঠিও ঠিক তেমনিভাবে যখন দেখল, তাদের চুরি, হত্যা, ধর্ষণ, এবং ব্যাংক ডাকতির বিরুদ্ধে কেউ কথা না  বললেও সত্যিকারের মেধাবী যারা তারা ঠিকই আওয়াজ তুলবে!! তখনি তারা কোটা নামের একটি ঘৃণ্য প্রথা চালু করে শুধুমাত্র নিজেদের হীনস্বার্থে! এরা এই কৌশল অন্য কারো কাছ থেকে শিখেছে এমনটা নয়, বরং এরা এ কৌশল পাকিস্তানীদের থেকেই শিখেছে ৷

যারা যুদ্ধের নয় মাস পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর পাহারায় জীবন-যাপন করেছিল, তাদের সরকারী গাড়িতে করে ঘুরে বেড়িয়েছিল, পাকিস্তানি সামরিক হাসপাতালে সন্তান প্রসব করেছিল!
‌তারাই একমাত্র পাকিস্তানি কৌশলে আমার সোনার বাংলাদেশে নব্য সংকট তৈরী করতে  পারে ৷ এটা এখন জাতির নিকট স্পষ্ট! যে, কারা আজকে নিজেদেরকে মুক্তিযুদ্ধা দাবী করছে? সুতরাং মুক্তিযুদ্ধা কোটা নামে কারা চাকুরি পাবে? এগুলো আজ জাতির সামনে দিবালোকের ন্যায় স্পষ্ট ৷ তাই তৎকালীন পাকিস্তানি সে ঘৃন্য কাজ ও তার ফলাফল এবং আমাদের রাষ্ট্রিয় শাসকদের অবস্থান থেকে পরিষ্কারভাবে বলতে পারি,কোটা পদ্ধতির মাধ্যমে যে যাই হাসিল করুক, শেষ পর্যন্ত একটি দেশ আবারো ধ্বংসের দিকে ধাবিত হবে ৷

১,৪৫০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   নবজাতক জন্ম—পরবর্তী করণীয় সম্পর্কিত ইসলামি নির্দেশনা   ❖   বাংলাদেশি বশির মালয়েশিয়ার মাহসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি   ❖   ৫০ হাজার ধার দিয়ে লিখে নেন আড়াই কোটি টাকার চেক   ❖   একই পরিবারের ৩ জনের লাশ উদ্ধার বরিশালে   ❖   রুম্পার সারা শরীরের হাড় ভাঙ্গা   ❖   দেশের সব স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন দেবে সরকার   ❖   মানুষের মতো বাচ্চা জন্ম দিল ছাগল!   ❖   নারীদের গণপরিবহনে চলাচল: পুলিশের ৯ পরামর্শ   ❖   “কুরআন-সুন্নাহর আলোকে মাযহাব” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন   ❖   বিএনপি যে ধরনের অস্থিরতা তৈরি করেছে, তা ক্ষমার অযোগ্য