All for Joomla The Word of Web Design
ইদানিং ভাবনা

প্রস্তুত হও প্রিয় স্বদেশ

ফুয়াদ মাকসুদ
আলেম ও লেখক
আমাদের সময়গুলো এখন যার যার নিজের মত করেই কাটে ৷ কেউ কারো ব্যাপার নিয়ে ভাবার সময় নেই ৷ যে যার মত করেই আছে, থাকে৷ কেউ কাউকে নিয়ে ভাবার সময় যেমন নেই ৷ তেমনি ছোট্ট পরিসরে এ বাংলাদেশ তথা নিজ মাতৃভূমি নিয়েও কারো ভাবার সময় নেই ৷ আমিও ঠিক একই রকম ৷ কারো থেকে আলাদা কেউ নই ৷ ভাববো-ও বা কিসের জন্য? যেখানে একটি দেশের পরিচালক, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর-ই নিজ দেশের প্রতি মায়া মমতা না থাকে তখন জনগনের ময়া মমতা আসবে কোত্থেকে? একজন প্রধানমন্ত্রীর যখন তার দেশ ও জনগন থেকে দূরত্ব তৈরী হয়ে যায় তখন একটি দেশ তার আপন অবস্থায় আর থাকেনা বরং অন্য দিকে তার গতি প্রবাহিত হয় ৷ হয়ত বলবেন কোন দিকে? হ্যাঁ, সেটা না বললেও সকলেরই জানা ৷

তবে আমি বলবনা ৷ কারণ আমি বলে কি লাভ? আমি শুধু শুধু বলবো, শুনবো, আবার মারও খাব! আর আপনি বসে বসে শুধু দেখবেন আর সুশীলের বাণী ছাড়বেন! না এতো হতে পারেনা ৷ আপনি যেমন জনগন আমিও তেমন একজন, কিন্তু আপনি এসি রুমে বসে শীতল হাওয়ায় গা জুড়াবেন আর আমি রোদ্রে পুড়ে ছাই হব, গাড়ি ড্রাইভারের গালী শুনব, পুলিশের মার খাব! না, তাতো হতে পারেনা ! সমসাময়িক ইস্যুগুলো নিয়ে আমি নিয়মিত লেখালেখি করি ৷ কিন্তু এখন আর লিখি না ৷ কারণ সবাই মনে করে লিখে যাওয়া, বলে যাওয়া এটা একমাত্র আমার কাজ ৷ আর উনাদের কাজ হল, মনে চাইলে একটু পড়ে কিছু একটা মন্তব্য করে যাওয়া ৷ মনে না চাইলে তাও না ৷ এই তো ছাত্র আন্দোলন হল ৷ অনেকে আমাকে মেসেঞ্জারে বা বিভিন্নভাবে নক করে যাচ্ছে ৷ ভাই, আপনি তো সমসাময়িক ইস্যুগুলো নিয়ে সর্বাদা লিখেন, প্রয়োজনে প্রতিবাদ করেন ৷ কিন্তু এখন লিখছেন না কেন? বরং প্রতিবাদ সমালোচনা না করে উল্টো হাসির পোস্ট করে যাচ্ছেন!

এদের অবস্থা দেখে আমার মনে হল, একমাত্র আমি বা আমাদের লেখক শ্রেণীর কাজ হল প্রতিবাদ করা, আর উনাদের কাজ হল, এগুলো পড়ে পড়ে সান্তনা নেওয়া ৷ যার কারণে ইচ্ছা করেই কলমটা রেখে দিয়েছি ৷ কারণ যে জাতি মনে করে তার অধিকার অন্য কেউ আদায় করে দিবে সে জাতি কোন দিনও তার মুক্তির পথ কিংবা সফলতার পথ খুজে পাবে না ৷ বরং এভাবে ক্ষয়ে ক্ষয়ে একদিন সে নিঃশেষ হয়ে যাবে ৷ সুতরাং যে জাতি নিজেদের পতনের দিকে নিজেরাই এগিয়ে যাচ্ছে, সে জাতির জন্য আমি বা আমরা কলম চালিয়ে কিই-বা করতে পারবো? তার চেয়ে নিজেও দর্শক সেজে কিছু মজা নেওয়াই ভাল ৷ অবশ্য ঐ বিপদ সংম্কল মূহুর্তে আমার জোকস টাইপের পোস্টগুলোর পিছনেও একটি বিরাট কারণ রয়েছে ৷ কারনটা হল, শেষ যেহেতু হয়েই যাব! তার পূর্বে একটু সাময়িক আনন্দে দুঃখটা ভুলে থাকা!

কেউ হয়ত বলবে, জনাব এ কেমন কথা? তবে কি এখানেও আমি মজা নিচ্ছি? না, আমি মজা নিচ্ছি না ৷
এ ধরণের উদাহরণ পৃথিবীতে আরো আছে ৷ যেমন ধরুণ, টাইটানিক জাহাজটা যখন বরফের ধাক্কায় ফেটে গেল, আটলান্টিকের প্রচন্ড ঠান্ডা পানি যখন ডুকতে লাগল, তখন সবাই কিন্তু স্বচক্ষে নিজের মৃত্যুটাকেই দেখতে পাচ্ছিল ৷ সবাই দেখতে পাচ্ছে কিভাবে তার সামনের মানুষটা পানির অতল গভীরে হারিয়ে যাচ্ছে, কিভাবে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে নিচ্ছে! কিন্তু ঠিক এ কঠিন মূহুর্তে কিছু বাদক দল সেখানে বাদ্য বাজিয়ে মানুষকে খনিকের জন্য আনন্দ দেওয়ার চেষ্টা করছিল! যাতে মৃত্যুর পূর্বে এ মানুষগুলোকে কিছুটা হলেও হাসানো যায় ৷ কিছুটা হলেও তাদের বিষন্নতাকে দূর করা যায় ! অথবা তাদের মনের মধ্যে কিছুটা সময়ের জন্য হলেও আশার আলো তৈরী করা যায়!

আমিও ঠিক একই অবস্থায় ছিলাম ৷ দেখতে পাচ্ছি, আটলান্টিকের পানি যেভাবে টাইটানিকের জিবন্ত মানুষগুলোকে গোগ্রাসে গিলে নিয়েছিল, বিপরীতে একদল স্বদেশী গাদ্দার, দিল্লির রাজাকার, মীর জাফর আর ঘষেটি বেগমরা নিজ দেশের জনগনকে কিভাবে চতুর্মূখী ধ্বংসযজ্ঞে দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাচ্ছে ৷ তবে এখনও সময় আছে, হে জাতি! তুমি টাইটানিকের যাত্রির মত না হয়ে পূর্বেই বিপরীত ব্যাবস্থা গ্রহণ কর ৷ না হয় তোমাকেও টাইটানিকের মত অতল গভীরে হারিয়ে যেতে হবে ৷ কেউ হারিয়ে গেছে সমুদ্রের অতল গভীরে, আর কেউ হারাবে ইতিহাসের আস্তাকুড়ে ৷

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   সিরিয়ায় বাস টার্মিনালে বোমা হামলায় ১০ জন নিহত   ❖   আবরার হত্যা: আজ দাখিল হতে পারে চার্জশিট   ❖   গোপন বৈঠক, শৃঙ্খলা ও পেশাগত আচরণ ভঙ্গের দায়ে তুরিনকে অপসারণ   ❖   কসবায় ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৫!   ❖   ফুকের আসরে ৫০ হাজার মানুষ! নেপথ্যে আওয়ামী নেতারা! (ভিডিও)   ❖   সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে অর্ধশত মামলার চূড়ান্ত বিচার আটকে আছে   ❖   আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলা   ❖   কে এই মুসলিম প্রত্নতাত্ত্বিক? যে দাবী করেছিল বাবরি মসজিদের নিচে মন্দির ছিল!   ❖   ট্রাইব্যুনাল থেকে তুরিনকে অপসারণ!   ❖   প্রেমিকাকে খুন, কাটা হাতসহ নদীতে প্রেমিক ইতিহাসবিদ