All for Joomla The Word of Web Design
ইসলামী জীবন

উত্তম আদর্শ

ফুয়াদ মাকসুদ
নিয়মিত লেখক, মাই নিউজ।

উত্তম আদর্শ শব্দটি বর্তমান সময়ে একটি বিরল শব্দ ৷ যা শুধু ওয়াজ মাহফিল আর বড় বড় ব্যক্তিদের মুখেই শুনা যায় ৷ কার্যত শ্রোতা তো নয়ই বরং খুব কম সংখ্যক নসিহতকারির মাঝেই এই আদর্শ পাওয়া যায় ৷ আর কারো যদি ক্ষমতা কিংবা অর্থ সম্পদ থাকে তাহলে তো আর কথাই নেই ৷ অথচ আমাদের প্রিয় নাবী সাঃ এর আদর্শ কেমন ছিল? যিনি চাইলে আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা সব কিছুই দিতেন! সে মহা মানব কেমন ছিলেন? আমরা যদি একটু ভাবতাম! তাহলে হয়তো আমাদের এ সমাজে এত অন্যায় অনাচার কোন কিছুই থাকতো না ৷ থাকতো শুধু ভালবাসা আর সৌহর্দ্য ৷ স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা নিজেই কুরআনে বলেন, “আপনি সুমহান চরিত্রের অধিকারী” ৷

সহী মুসলিমে হযরত আয়েশা রাঃ হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, কুরআনই ছিলো তাঁর চরিত্র ৷ উম্মুল মু’মিনিন হযরত সাফিয়া রাঃ বলেন, আমি রাসূল সাঃ হতে আর কোন উত্তম চরিত্রের অধিকারী কাউকে পাইনি ৷
আরো আশ্চার্যের বিষয় হলো, রাসূল সাঃ কেমন হবে তা নবুয়তের ছয়শত বছর পূর্বেই আল্লাহ তায়ালা ইঞ্জিলে বলে দিয়েছেন ৷ যেমন বুখারীতে এসেছে,
ليس بفظ و لا غليظ. ولا سخاب بالاسواق. و لا يدفع السيئة بالسيئة. ولكن يعفو و يصفح
অর্থাৎ তিনি কঠিনস্বভাব এবং পাষাণহৃদয়ের হবেন না, তিনি বাজারে গিয়ে হট্টগোল করবেন না, এবং তিনি খারাপকে খারাপ দ্বারা প্রতিহত করবেন না, বরং তিনি অন্যায়কে ক্ষমা করে দিবেন ৷ শুধু এটুকুই নয়! আজকাল তো আমাদের বড়বড় ব্যক্তিদের খাদেম তো দূরের কথা, বরং তাঁদের কাছের মানুষরাও তাঁদের আচরণে অসন্তুষ্ট থাকে ৷ অথচ রাসূল সাঃ এর খাদেম হযরত আনাস রাঃ বলেন, আল্লাহর কসম! আমি নয় বছর আল্লাহর রাসূলের খেদমত করেছি, কিন্তু কোন সময় তিনি আমাকে আমার কোন কাজের কারণে একথা বলেন নি, এটা করলে কেন?/এমন করলে কেন?/এমন করলেনা কেন?

হযরত আনাস রাঃ আরো বলেন রাসূল সাঃ ছিলেন সকল মানুষের মধ্যে সর্বোৎকৃষ্ট ৷ একবার রাসূল সাঃ আমাকে একটি কাজে যাওয়ার জন্য বললেন ৷ তখন আমি বললাম, আল্লাহর কসম! আমি যাবো না! কিন্তু আমার মনে মনে ছিলো আমি যাবো ৷ আমি বের হয়ে বাজারে খেলারত কিছু বাচ্ছাদের কাছে যখন গেলাম, হঠাৎ রাসূল সাঃ পিছন থেকে আমার ঘাড়ে ধরলেন! আমি পিছনে ফিরে দেখি তিনি হাসছেন ৷ এবং আমাকে বললেন হে উনাইস! তোমাকে যেখানে যাওয়ার কথা বলেছিলাম, তুমি কি সেখানে গিয়েছো? আমি বললাম হ্যাঁ, ইয়া রাসূল্লাহ এই তো যাচ্ছি ৷

এই আমাদের রাসূল সাঃ এর আদর্শ ৷ আজ আমাদের কথা একটু চিন্তা করি ৷ যদি আমাদের কোন কাজের ছেলে কিংবা খাদেম এমন করতো, আমরা কি আচরণ করতাম ? আমরা তো সামান্য পান থেকে চুন খসলেই খাদেমদেরকে বকাবকি থেকে শুরু করে হাত তুলতে পর্যন্ত দ্বিধাবোধ করিনা ৷ অথচ আল্লাহর রাসূল সাঃ আমাদের সামনে কতইনা চমৎকার আখলাক রেখে গেছেন ৷
আসুন আমরা সকলেই রাসূল সাঃ এর উত্তম আদর্শগুলো আমাদের জীবনে এবং সামাজে বাস্তবায়নে সচেষ্ট হই ৷

সূত্রঃ
কুরআন সূরাতুল ক্বালাম।
সহীহ বুখারী।
সহীহ মুসলিম।
ফাতহুল বারী শরহুল বুখারী।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   কাল থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে আরব আমিরাতের মসজিদ   ❖   এডিআইও আবুধাবিতে স্টার্টআপের তহবিলের প্রবেশাধিকার বাড়ানোর জন্য শোরুক পার্টনার্স বেদায়া তহবিলে বিনিয়োগ করেছে   ❖   বাইতুল মোকাররমের খতিব হতে পারেন মাওলানা হাসান জামিল সাহেব!   ❖   ভারতীয় একজন কিডনী ব্যর্থতায় আক্রান্ত শিক্ষার্থীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, তুমি নিরাপদ হাতে রয়েছ   ❖   উচ্চ আদালতের স্থিতিবস্থা জারির পরও ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে রাজধানীর একটি মসজিদ   ❖   করোনাকালে ক্বওমী মাদরাসাগুলোর ১২ চ্যালেঞ্জ   ❖   চাকরিচ্যুৎ সেই ইমামকে স্বপদে বহাল করতে লিগ্যাল নোটিস   ❖   আজারবাইজানকে ১১ টন চিকিত্সা সহায়তা পাঠিয়েছে আমিরাত   ❖   রাতে নৌকার ছাদে জানাজা পড়ে লাশ ফেলা হতো সাগরে : খোদেজা বেগমের দুঃসাহসিক সমুদ্রযাত্রা   ❖   স্বেচ্ছাচার, স্বজনপ্রীতি ও স্বৈরাচার