All for Joomla The Word of Web Design
অর্থনীতি

আমিরাতে করোনার কারণে ব্যাংকের কিস্তি পরিশোধে ছাড়

ঋণগ্রহীতাদের জন্য বিশেষ সুবিধার ঘোষণা দিয়েছে আমিরাতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, ঋণের কিস্তি পরিশোধে ছাড় অব্যাহত রাখতে হবে। কোনো ঋণগ্রহীতা ঋণ শোধ না করলেও ঋণের শ্রেণিমানে কোনো পরিবর্তন আনা যাবে না। আজ বৃহস্পতিবার দেশের সব তফসিলি ব্যাংককে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে বর্তমানে কোনো ঋণগ্রহীতা যদি ৩০ জুন পর্যন্ত কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হন, তাহলে তাঁকে খেলাপি করা যাবে না। তবে যদি কোনো খেলাপি ঋণগ্রহীতা এই সময়ের মধ্যে ঋণ শোধ করেন, তাঁকে নিয়মিত ঋণগ্রহীতা হিসেবে চিহ্নিত করা যাবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ প্রধান হারিব মাসউদ আদ দারমাকির নেতৃত্বে বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয়। উক্ত সভায় পরিচালনা পর্ষদ কোভিড মহামারীর সংকটগুলো নিয়ন্ত্রণ করার জন্য পরিচালিত বিস্তৃত অর্থনৈতিক সহায়তা পরিকল্পনার সর্বশেষ অগ্রগতি সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে। পরিকল্পনাটির বাস্তবায়ন অনুসরণ এবং কাঙ্ক্ষিত উদ্দেশ্য অর্জনের জন্য প্রয়োজনীয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দেয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে  আয়োজিত বৈঠকে বলা হয়, করোনাভাইরাসের কারণে ব্যবসা-বাণিজ্যে নেতিবাচক প্রভাব পড়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ওই বৈঠকে বলা হয়, সম্প্রতি করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ববাণিজ্যের পাশাপাশি আরব আমিরাতেও ব্যবসা-বাণিজ্যেও কিছুটা নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। আমদানি-রপ্তানিসহ দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে করোনাভাইরাসের কারণে বিরূপ প্রভাবের ফলে অনেক ঋণগ্রহীতাই সময়মতো ঋণের অর্থ পরিশোধে সক্ষম হবেন না বলে ধারণা করা যাচ্ছে। এতে চলমান ব্যবসা-বাণিজ্য ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার এবং দেশে সামগ্রিক কর্মসংস্থান বাধাগ্রস্ত হবে—এমন আশঙ্কা তৈরি হতে পারে।

এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে, ঋণের শ্রেণিমান যা ছিল, ওই মানেই রাখতে হবে। এর চেয়ে বিরূপ মানে শ্রেণীকরণ করা যাবে না।

বৈঠকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান শেখ ডাঃ আহমেদ আব্দুলাজিজ আল-হাদাদ প্রণীত ২০১৯ সালের জন্য ব্যাংকের অধিভুক্ত শরিয়া সুপ্রিম অথরিটির বার্ষিক প্রতিবেদনও পর্যালোচনা করেন।

বৈঠকে ২০১৯ সালের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বার্ষিক প্রতিবেদন নিয়ে আলোচনা হয়। যার মধ্যে দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন, আর্থিক স্থিতিশীলতার সূচক, ব্যাংকের তরলতা, নগদ সংরক্ষণের ব্যবস্থাপনার, পেমেন্ট সিস্টেমের বিকাশ, নগদ টোটাল এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যালান্সশিট ছাড়াও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ২০১৯ সালের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম রয়েছে।

সূত্র: আল বায়ান 

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   লেবাননে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় আমিরাত   ❖   ৮ আগস্ট মাদরাসা খোলার সিদ্ধান্ত স্থগিত করলো হাইআতুল উলয়া   ❖   অক্ষমদের ক্ষমতা ছেড়ে দেয়া উচিত নয় কি?   ❖   আমিরাত: বরাকাহ পারমাণবিক শক্তি কেন্দ্রের ইউনিট ১ এর নিরাপদ উদ্বোধন   ❖   এবার হুয়াওয়েকে নিষিদ্ধ করল যুক্তরাজ্য   ❖   রিজেন্টর চেয়ারম্যান সাহেদ গ্রেফতার   ❖   কাল থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে আরব আমিরাতের মসজিদ   ❖   এডিআইও আবুধাবিতে স্টার্টআপের তহবিলের প্রবেশাধিকার বাড়ানোর জন্য শোরুক পার্টনার্স বেদায়া তহবিলে বিনিয়োগ করেছে   ❖   বাইতুল মোকাররমের খতিব হতে পারেন মাওলানা হাসান জামিল সাহেব!   ❖   ভারতীয় একজন কিডনী ব্যর্থতায় আক্রান্ত শিক্ষার্থীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, তুমি নিরাপদ হাতে রয়েছ